ফ্লার্টিং

– আপনার নামটা যেন কী?

নাম তো আমি বলিইনি!

– বলেননি! এখন তবে বলেন।

চাইলেই সব হয়, তাই বুঝি ভাবেন?

– নামই জানতে চেয়েছি, ঠিকুজি না!

বললেই সব উগরে দেবো, তাই না?

– আপনাকে চিনি না, ঝগড়া আমি চাই না

ওমা, কোথায় ঝগড়া? এ তো বাস্তবতা!

– আপনার দেখছি বড্ড বেশি দেমাগ!

সবারই তাই থাকে হলে খানিকটা সজাগ।

– হার মানছি, কেন মিছে লড়ে মরছি?

কে চেয়েছে? দিন না লড়াইয়ে যতি!

– আচ্ছা, এখন তবে নামটা পেতে পারি?

ও বাবা, কীভাবে? পরিচয় হলো নাকি?

– সেকি! হয়নি? এই তো আছি পাশাপাশি দিব্যি।

আপনি বড্ড গায়েপড়া, এভাবে কেউ বলে কি?

– আহা, নামই শুধু জানতে চেয়েছি, অন্যকিছু চাইনি!

এভাবেই সবে বলে, ভাজা মাছটি যেন উল্টোয়নি!

– আপনি তো দেখি অসাধারণ পেঁচুক!

কেউ জানি কলিকালের সরল ভাবুক!

– উফ! পেরে ওঠাই দায়, দস্যি মেয়ে বাবা!

এবার তবে থামি, কথা না বাড়ুক, টাটা।

– কিন্তু এ লগ্ন প্রেমের আবিরে মগ্ন, যাবে বৃথা?

ওমা, কবি নাকি? পালিয়ে বাঁচি, নেই যে আশা!

– অনেক হয়েছে, এবার নাহয় একটু মিল করি?

কী চাইছেন, তাই তো জানিনা, কীসে হবে কী?

– নামটা যেন কী? দুত্তরি ছাই, তলই না পাই!

নাম কটকটি। চলবে? নইলে আর না এগোই।

– হা হা হা, তবে ছলনা নয়, সত্যি?

হি হি হি, তাহলে আর বলছি কী!

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out /  Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out /  Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out /  Change )

Connecting to %s